কামিনীর বিলাপ

94
বৃষ্টি মাসুদ

কামিনীর বিলাপ

লেখকঃ বৃষ্টি মাসুদ

আমি প্রতিদিন ভাঙি প্রতিদিনই গড়ি,
আমার সততা ভাঙে হারায় সতীত্ব, ভাঙে আশা,
আমি চোখের জলে কালো ঝিল গড়ি,
চলি বহতা নদীর অবিরত স্রোতধারা।

আমি চিতার আগুনে জ্বলি আমি পুড়ি সতিদাহে
প্রথায় জালে জড়ায় আমার উর্বশী এই নারীর মন।
আমি সুখের খোঁজে বের হই করি মরিচিকাকে আলিঙ্গন।

আমি কন্যা জায়া জননী, আমি দেবি,আমি কালী
আমি চিত্রাঙ্গদা ,আমি নৃত্যকলায় পটিয়সী,
তবু্ও তো কোন রুপে ক্ষমা করোনি হে অবনি।

তাই তো আজও আমি সাজি নিত্য নতুন সাজে
যখন তখন চাও গো বাঁধিতে তোমার বাহু ডোরে।

আমি অহর্নিশ জ্বলি মনের খরতাপে,
আমি নতুন সৃজন ভূত ও ভবিষ্যতে।

সাঁতপাঁকে ঘুরে সাজনা তলায় শুভদৃষ্টির ছলে,
কিশোরী নারীর স্বপ্ন সুখের বধ।
কবুল নামের মন্ত্রে বাঁধা আমার যত সাধ।

রঙ কেড়ে নিয়ে বিবর্ণ করে আমায় করেছো সন্ন্যাসী
সংসার নামের মঞ্চে করেছো আমায় কৃতদাসী।

তবুও আমি নারী রূপে এসেছি বারেবার,
এক রূপ থেকে অন্য রূপে মরেছি শতবার।

মুখ ঝলসে কদাকার করেছো ঘৃনার দৃষ্টি ছুঁড়ে ফেলে,
তবুও প্রয়োজনে চাঁদেকে চেয়েছো ঝলসানো রুটির বেশে।

শত অপবাদ দিয়েও পৃথিবী এই নারীর কাছে আসো,
আমার গায়ের গন্ধ মাড়িয়ে ফুলের হাসি হাসো।